May 22, 2024
Sevoke Road, Siliguri
অপরাধ উত্তরবঙ্গ ঘটনা

Crime : শিশু বিক্রি করতে এসে মহিলা সহ গ্রেপ্তার ৪

শিলিগুড়ি , ২৬ মার্চ : বিহার থেকে সদ্যোজাত শিশু নিয়ে এসে বিক্রি করার অভিযোগে গতকাল রাতে গ্রেপ্তার করা হয় চারজনকে । আজ তাদের আদালতে তোলা হয় | সূত্রের খবরের ভিত্তিতে শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিসের স্পেশাল অপারেশন গ্রুপ ( এসওজি) এবং মাটিগাড়া থানার পুলিস যৌথ অভিযানে সাতদিনের এক শিশুকন্যাকে উদ্ধার করে হাতেনাতে চারজনকে গ্রেপ্তার করে ।


পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে , বিহারের পাটনা থেকে সাত দিনের সদ্যোজাত ওই শিশুকন্যাকে গতকাল সকালে শিলিগুড়িতে আনা হয়েছিল । শিলিগুড়ির এক দম্পতির এই শিশুকন্যা কেনার কথা ছিল । শুক্রবার রাতে বাসে করে পাটনা থেকে এক মহিলা ওই শিশুকন্যাকে নিয়ে গতকাল শিলিগুড়িতে আসে । বাগডোগরার বাসিন্দা এক মহিলা তাদের যোগাযোগের মাধ্যম ছিল।

তার কথামতো এদিন শিবমন্দির এলাকায় ওই দম্পতি শিশু কেনার জন্য উপস্থিত হয়েছিল । ঘটনাস্থলে বাগডোগরার ওই মহিলাও ছিল । বিশেষ সূত্রের আগাম খবরের ভিত্তিতে এসওজি এবং মাটিগাড়া থানার পুলিস গত কয়েকদিন ধরে এই বিষয়টিতে নজরদারি রেখেছিল । পাটনা থেকে আসা মহিলা শিশু সহ শিব মন্দির এলাকায় পৌঁছতেই পুলিস হাতেনাতে চারজনকে ধরে ফেলে।


ধৃতদের মধ্যে বাগডোগরার মহিলা এবং পাটনা থেকে শিশু নিয়ে আসা মহিলা রয়েছে । গ্রেপ্তার করা হয়েছে শিশুকন্যাকে কিনতে যাওয়া ওই দম্পতিকেও । তবে তদন্তের স্বার্থে পুলিস ধৃতদের নাম-পরিচয় গোপন রেখেছে ।

শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিসের কমিশনার অখিলেশ চতুর্বেদী বলেন , বিহারের পাটনা থেকে সদ্যোজাত এক শিশু কন্যা এনে বিক্রি করার খবর পেয়ে এসওজি এবং মাটিগাড়া থানার পুলিস তদন্ত চালিয়ে শিশুকে উদ্ধার করে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে । ঘটনা নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে ।


এদিকে পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে পাটনায় বসে রয়েছে এই শিশু বিক্রি চক্রের মূল পান্ডা । তার হদিশ পেতে এবং গোটা চক্রের জাল গুটাতে এখান থেকে পুলিসের একটি দল পাটনার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে । এর আগেও এরা শিশু বিক্রি করেছিল কিনা সেই দিকটি জানার পাশাপাশি তদন্তে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে এই চক্রের জাল কতদূর পর্যন্ত ছড়ানো আছে |

ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা অত্যন্ত গরিব পরিবারকে টাকার প্রলোভন দেখিয়ে এই চক্র সদ্যোজাত শিশুদের নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করে থাকতে পারে। আবার একটি মহল মনে করছে, শিশুকন্যা হওয়ায় বিহারের কোনও ব্যক্তি তার সন্তান বিক্রি করে দিয়ে থাকতে পারে। পুলিস ঘটনার তদন্ত করে দেখছে |

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

DMCA.com Protection Status